৫০ টাকার মাস্ক ২২৫৫ টাকায় বিক্রি, দারাজকে ২ লাখ টাকা জ’রিমানা !

অ’তিরিক্ত দামে মাস্ক বিক্রি করায় অনলাইন শপিং সাইট দারাজ ডটকমকে দুই লাখ টাকা জ’রিমানা করেছে র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।রোববার রাতে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে দারাজের ওয়্যার হাউসে অভিযান শেষে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম তাদের জ’রিমানা করেন।

সারওয়ার আলম বলেন, দারাজ মূলত একটি মার্কেটপ্লেস। এখানে অন্য ব্যবসায়ীরা পণ্য বিক্রি করেন। কিন্তু ক’রোনা অ’তঙ্কের সুযোগ নিয়ে বাড়তি দামে বিক্রেতারা মাস্ক বিক্রি করছিলেন,দারাজ যা নজরদারি করতে ব্য’র্থ হয়।

এজন্য দারাজকে দুই লাখ টাকা জ’রিমানা করা হয়েছে।অ’ভিযানে ৫০ থেকে ৫৫ টাকার মাস্ক সর্বোচ্চ দু’হাজার দু’শ ৫৫ টাকা পর্যন্ত বিক্রি করা বিক্রেতাদের চিহ্নিত করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য করোনা সং’ক্রমণ রোধে ফেস মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার সরবরাহ নিশ্চিত করতে এবং মূল্য নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে ওষুধ উৎপাদনকারী ও মেডিকেল ডিভাইস উৎপাদনকারী এবং আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেছে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর।

বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে থ্রি লেয়ার সার্জিক্যাল ফেস মাস্কের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য প্রতি পিস ৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়। নির্ধারিত মূল্যের চাইতে বেশি দামে কেউ বিক্রি করলে তার বি’রুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার হুঁ’শিয়ারি দেয়া হয়।

এছাড়াও মাস্ক উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ কর্তৃক একই ডিস্ট্রিবিউটরকে একটি ইনভয়েসে ৫০০ পিসের বেশি মাস্ক সরবরাহ না করা এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানকে

এ পণ্য প্রাপ্তি নিশ্চিত করতে ৫০ এমএল প্যাক সাইজে হ্যান্ড স্যানিটাইজার উৎপাদন ও সরবরাহ বাড়ানোর নির্দেশনা দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *